স্বাস্থ্যই সুখ

0

ডেঙ্গু বর্তমান সময়ে সবচেয়ে আতংকের বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে। এ বিষয়ে চরফ্যাসন হাসপাতালের ইমারজেন্সি মেডিকেল অফিসার ডা. অমিতাভ বলেন, ডেঙ্গু রোগীর সঠিক সংখ্যা জানা না থাকলেও প্রায় প্রতিদিনই হাসপাতালে ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগী চিকিৎসা নিতে আসছেন। তার মধ্যে ঢাকা থেকে ঈদ করতে আসা রোগীর সংখ্যা বেশি। বিশেষ করে শিশুরা এ রোগে বেশি আক্রান্ত হচ্ছে বলে জানান তিনি। তিনি বলেন, এডিস মশা সাধারণত দিনের বেলা, সকাল ও সন্ধ্যায় কামড়ায়। তবে রাতে উজ্জ্বল আলোতেও এডিস মশা কামড়াতে পারে। তাই ঘরের আশে পাশে যাতে পানি জমা না থাকে সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে। দিনের বেলা যথাসম্ভব শরীর ভালোভাবে ঢেকে রাখতে হবে, মশার কামড় থেকে বাঁচার জন্য দিনে ও রাতে মশারি ব্যবহার করতে হবে। সম্ভব হলে ঘরের দরজা ও জানালায় নেট লাগানো যেতে পারে। শিশুরা আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি বেশি থাকে। কারণ তারা শুয়ে থাকে বেশি এবং স্কুলে গিয়ে ক্লাস রুমে বসে থাকে। তাই বাচ্চাদের হাফ প্যান্টের পরিবর্তে ফুলপ্যান্ট বা পাজামা পরাতে হবে। ডেঙ্গু জ্বরে আক্রন্ত রোগীদের বিশ্রামে থাকতে হবে, বেশি বেশি তরল খাবার খেলে জ্বর নিয়ন্ত্রণে আসতে পারে। জ্বর হলে প্যারাসিটামল ও চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়া অন্য কোনো ব্যথার ঔষুধ সেবন না করার পরামর্শ দেন এই চিকিৎসক।

স্বাস্থ্য-চিকিৎসা ও পরামর্শ বিষয়ক সাপ্তাহিক অনুষ্ঠান ‘স্বাস্থ্যই সুখ’। উপস্থাপনায় জেসমিন ও প্রযোজনা উম্মে নিশি। প্রচারিত হয়েছে ২৫ আগস্ট (রবিবার) সন্ধ্যা ৬ টায়। শুধুমাত্র রেডিও মেঘনা ৯৯.০ এফএম এ।

Share.

Leave A Reply