কৃষি ও কৃষক

0

মাঠের পর মাঠ সবজির সবুজ সমারোহে সাজিয়ে তুলেছেন চরফ্যাসনের কৃষকরা। আধুনিক পদ্ধতিতে সবজি উৎপাদন করে রপ্তানী করছেন বিদেশেও। এ বিষয়ে চরফ্যাসন উপজেলার বেতুঁয়া ও হাজারিগঞ্জ ইউনিয়নের চরফকিরা এলকার কৃষক জসিম বলেন, সবজি চাষের সঠিক পদ্ধতি না জানলেও ২০০৮ সাল থেকে অল্প আকারে চাষ শুরু করেন। এরপর উপজেলা কৃষি অফিসের সহযোগিতা, পরামর্শ ও প্রশিক্ষণের মাধ্যমে বানিজ্যিক আকারে সবজি চাষ শুরু করেন। ২০১৮ সালের দিকে বাংলাদেশের বিভিন্ন জেলা উপজেলায় সবজি রপ্তানি শুরু করেন। আর আধুনিক পদ্ধতিতে কিভাবে সবজি উৎপাদন ও বিদেশে রপ্তানী করা যায় তা কৃষি বিষয়ক বিভিন্ন ট্রেনিংয়ের মাধ্যমে জানার সুযোগ তৈরি করে দিয়েছে উপজেলা কৃষি অফিস। এরপর বাণিজ্য ও কৃষি মন্ত্রণালয় থেকে পরিদর্শন করে প্রথমে কুয়েতে রপ্তানি করা হয়। পরবর্তীতে আরো কয়েক দফায় ৩টা রাষ্ট্রে রপ্তানি করেন এবং আরো ৯টি রাষ্ট্রে এই সবজি রপ্তানির কথা বলেন।

এ বিষয়ে উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা আবু হাসনাইন বলেন, চরফ্যাসন উপজেলায় বিষমুক্ত সবজি উৎপাদন হচ্ছে। এই খবর জানার পর ভেজিটেবলস্ ফুডস্ এক্সপোর্ট এ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি ভিজিটে আসেন। সবজি বিষমুক্ত কি না তা পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে প্রথমে ৫০ কেজি ও পরে ৬০ কেজি চিচিংঙ্গা পাঠানো হয়। বর্তমানে ইউরোপের দেশগুলোতে রপ্তানি হচ্ছে। তবে আরো ১২টি রাষ্ট্রে এসব সবজি রপ্তানি করা হবে। একজন কৃষক হয়ে সরাসরি এক্সপোর্টারদের মাধ্যমে নিজেদের চাষকৃত সবজি ন্যায্য দামে বিদেশে রপ্তানি করতে পেরে খুশি কৃষক জসিমসহ অন্যান্য সবজি চাষীরা।

কৃষি সমস্যা ও পরামর্শ বিষয়ক রেডিও মেঘনার সাপ্তাহিক অনুষ্ঠান কৃষি ও কৃষক। প্রচারিত হয় প্রতি বুধবার বিকেল ৫:৪০ টায়। শুনতে কান পাতুন শুধুমাত্র রেডিও মেঘনা ৯৯.০ এফএম এ।

Share.

Leave A Reply