দূর্যোগ প্রস্তুতি

0

চরফ্যাসন উপজেলার সামরাজ এলাকার আমেনা বেগম (৩০)। গত ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের সময় জোয়ারের পানিতে প্লাবিত হয়ে যায় তাদের ঘরবাড়ি। অনেক ভয় পেলেও বাড়ির কাছে নিরাপদ আশ্রয় কেন্দ্র না থাকায় জীবনের ঝুঁকি নিয়ে সেখানেই অবস্থান করেন। বড় ধরনের কোনো ক্ষয়ক্ষতি না হলেও আতঙ্ক নিয়ে অবস্থান করেন সেখানকার মানুষজন।
এ ব্যপারে চরফ্যাসন উপজেলার ঘূর্নিঝড় প্রস্তুতি অফিসের সহকারী পরিচালক মোকাম্মেল হক জানান, উপকূলীয় অঞ্চলে পর্যাপ্ত নিরাপদ আশ্রয় কেন্দ্র রয়েছে। তবে অনেক মানুষ ইচ্ছা করে তাদের ঘরবাড়ি, হাঁস-মুরগি, গরু-ছাগল ও সম্পদ ছেড়ে আসতে চাই না। ফলে কিছু কিছু সময় দূর্ঘটনার শিকার হতে হয় তাদের। তাই যে কোনো দুর্যোগে নিরাপদ স্থানে অবস্থান এবং প্রয়োজনে আশ্রয় কেন্দ্রে আসার জন্য বিশেষ ভাবে অনুরোধ জানান তিনি।

দুর্যোগে ক্ষয় ক্ষতি কমিয়ে আনতে এবং সচেতনতা বাড়াতে প্রচারিত হয় রেডিও মেঘনার নিয়মিত অনুষ্ঠান ‘দূর্যোগ প্রস্তুতি’। উপস্থাপনা জেসমিন জেরি এবং প্রযোজনায় উম্মে নিশি। এবারের পর্বটি প্রচারিত হয়েছে ৫ জানুয়ারি (রবিবার) সকাল ৯:২৫ টায়।

Share.

Leave A Reply